পুজোয় ফেশিয়াল করার আগে যে ৫টি বিষয় অবশ্যই মাথায় রাখবেন

একেক ধরনের ফেশিয়ালের ক্ষেত্রে একেক রকম সময়ের ব্যবধান বজায় রাখা জরুরি। আসুন এ বিষয়ে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক…

পুজো আসছে। তাই কেনাকাটা, রূপচর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে জোর কদমে। আর রূপচর্চার ক্ষেত্রে ফেশিয়াল মাস্ট! সৌন্দর্যের দু’টি গুরুত্বপূর্ণ শর্ত হল নিখুঁত মুখের ত্বক আর স্বাস্থ্যজ্জ্বল ঘন চুল। এই দু’টির সঠিক যত্ন নিতে পারলে বয়সও থমকে যাবে আপনার কাছে। মুখের সৌন্দর্য ধরে রাখতে চাইলে নিয়মিত মুখের ত্বকের সঠিক যত্ন নেওয়া প্রয়োজন।

কিন্তু ঠিক কত দিন অন্তর ফেশিয়াল করা উচিত? এই উত্তর এক কথায় দেওয়া সম্ভব নয়। কারণ, একেক ধরনের ফেশিয়ালের ক্ষেত্রে একেক রকম সময়ের ব্যবধান বজায় রাখা জরুরি। আসুন এ বিষয়ে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক…

১) ফেশিয়ালের দু’ রকমের হয়— বেসিক আর অ্যাডভান্সড ফেশিয়াল। কারও অনুরোধে নয়, ফেশিয়াল করা উচিত ত্বকের ধরন অনুযায়ী। প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

২) বেসিক ক্লিন আপ ফেশিয়াল বাড়িতে সপ্তাহে এক দিনই করা যেতে পারে।

৩) অ্যাডভান্সড ফেশিয়াল মাসে ২ বারের বেশি কোনও ভাবেই করা উচিত নয়।

৪) ত্বকের ক্ষতি না করে অ্যাডভান্সড ফেশিয়াল করতে চাইলে মাসে ২ বারের বেশি ফেশিয়াল করার প্রয়োজন নেই।

৫) একবার অ্যাডভান্সড ফেশিয়াল করার পর অন্তত ১৫ দিনের ব্যবধান থাকা জরুরি। না হলে উল্টে ত্বকের ক্ষতি হয়ে যেতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WhatsApp chat