বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সিএবি প্রেসিডেন্ট হলেন সৌরভ

বিরোধী শিবিরের কোনও অস্তিত্ব ছিল না। শুধু শাসকগোষ্ঠীর প্রার্থীরাই জমা দিয়েছিলেন মনোনয়ন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাতেই সিএবি নির্বাচনে কার্যত জয়ী হয়ে গিয়েছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত প্যানেল। বাকি ছিল শুধু আনুষ্ঠানিক ঘোষণা।

সেটাই বৃহস্পতিবার রাতের দিকে এল। নির্বাচনী অফিসার সুশান্ত রঞ্জন উপাধ্যায় ঘোষণা করেন নির্বাচনে জয়ীদের নাম। ফলে, ২০২০ সালের জুলাই পর্যন্ত সিএবি প্রেসিডেন্ট থাকছেন সৌরভ। তারপর বোর্ডের সংবিধান মেনে ‘কুলিং-অফ পিরিয়ড’ শুরু হবে তাঁর।

জগমোহন ডালমিয়ার মৃত্যুর পর ২০১৫ সালে প্রথমবার সিএবি-র প্রেসিডেন্ট হয়েছিলেন সৌরভ। তার আগে ২০১৪ সাল থেকে সিএবি-র যুগ্ম সচিব ছিলেন তিনি। যুগ্ম সচিব হওয়ার আগে সিএবি-র ওয়ার্কিং কমিটির সদস্যও ছিলেন তিনি। যদিও যুগ্ম সচিব থেকেই পদাধিকারী হিসেবে ছয় বছর ধরা হচ্ছে। তাই পরের বছর জুলাই পর্যন্ত সিএবি-র প্রেসিডেন্ট থাকতে পারবেন সৌরভ।

ডালমিয়ার পুত্র অভিষেক সচিব হয়েছেন। যুগ্ম সচিব হয়েছেন দেবব্রত দাস। কোষাধ্যক্ষ হয়েছেন দেবাশিস গঙ্গোপাধ্যায়। শনিবার সিএবিতে বার্ষিক সাধারণ সভা। সেদিন থেকেই দায়িত্ব বুঝে নেবেন পদাধিকারীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WhatsApp chat